সর্বশেষ

ফুলগাজীতে খালেদার গ্রামের বাড়ির আঙ্গিনায় আওয়ামী লীগের কাঙ্গালী ভোজ

সুরঞ্জিত নাগ, ফেনী: 
ফেনীর ফুলগাজী উপজেলার দক্ষিন শ্রীপুর গ্রামে বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার গ্রামের বাড়ির আঙ্গিনায় শনিবার আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪০তম শাহাদাৎ বাষির্কী  ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে কাঙ্গালী ভোজ-দোয়া মাহফিল ও শোকসভার আয়োজন করা হয়।

সুত্র জানায়, শনিবার দুপুরে কাঙ্গালী ভোজ-দোয়া মাহফিল ও শোকসভায় প্রধান অতিথি ছিলেন ফেনী-১ আসনের (ফুলগাজী, পরশুরাম ও ছাগলনাইয়া) সাংসদ জাসদ নেত্রী শিরীন আখতার। এসময় উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা চেয়ারম্যান আবদুল আলিমসহ আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ, যুবলীগ নেতাকর্মী এবং স্থানীয় লোকজন উপস্থিত ছিলেন।

তার আগে গত শুক্রবার বিকেলে ফেনী-২  আসনের (ফেনী সদর) সাংসদ ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন হাজারী দলীয় কয়েকজন নেতাকে সাথে নিয়ে দক্ষিন শ্রীপুর বেগম খালেদা জিয়ার গ্রামের বাড়িতে যান।

জানতে চাইলে সাংসদ নিজাম হাজারী বলেন, ‘বেগম জিয়ার চাচাতো ভাই শামীম মজুমদারসহ পরিবারের লোকজন তাঁকে অনুরোধ করে বলেছিলেন ‘আপনারাতো বিভিন্ন জায়গায় কাঙ্গালী ভোজ করে থাকেন, এবার আমাদের এখানেও করতে পারেন’। তাঁদের কথায় আমি (নিজাম হাজারী) রাজী হই এবং একটি গরু ও চালসহ যাবতীয় মশলার ব্যবস্থা করে দিয়েছি। স্থানীয় আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ ও যুবলীগ সেখানে সহযোগিতা করেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী সুত্র জানায়, বেগম খালেদা জিয়ার বাড়ির আঙ্গিনায় জাতীয় শোক দিবসের কাঙ্গালী ভোজের জন্য গত শুত্রবার রাতে ৭৫ হাজার টাকা দামের একটি গরু এবং চালসহ যাবতীয় মসলা নিয়ে যাওয়া হয়। রাত ১২টা ১০ মিনিটে গরু জবাই করা হয়। রাতে গরু জবাইসহ বিভিন্ন কাজ তদারকি করেন জেলা আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ সহ সভাপতি খায়রুল বাশার, ফুলগাজী উপজেলা চেয়ারম্যান আবদুল আলিম, পরশুরাম উপজেলা চেয়ারম্যান কামাল উদ্দিন মজুমদার, ঢাকাস্থ ফেনী সমিতির সাধারণ সম্পাদক শেখ আবদুল্লাহ, ফুলগাজী সদর ইউনিয়ন ছাত্র লীগের সভাপতি নুরুল ইসলাম রায়হান ও স্থানীয় যুবলীগ নেতা ইয়াছিন সাদেক, আওয়ামী লীগ নেতা জসীম উদ্দিনসহ বেশ কিছু নেতাকর্মী।

আজ শনিবার দুপুর ১২টায় দক্ষিন শ্রীপুর বেগম খালেদা জিয়ার বাড়ির আঙ্গনায় কাঙ্গালী ভোজ ও দোয়া মাহফিলে উপস্থিত হন জাসদ নেত্রী ও ফেনী-১ আসনের সাংসদ শিরিন আক্তার।

এ সময় স্থানীয় মাদ্রাসার শিক্ষার্থীসহ সহস্রাধিক লোকজনকে কাঙ্গালী ভোজের তবারক বিতরণ করা হয়। তবে এ সময় বেগম খালেদা জিয়ার পরিবারের কাউকে সেখানে উপস্থিত থাকতে দেখা যায়নি।

এ বিষয়ে কথা বলার জন্য চেষ্টা করেও বেগম খালেদা জিয়ার গ্রামের বাড়ির কাউকে পাওয়া যায়নি।

তাছাড়া বেগম জিয়ার বাড়ির আঙ্গিনায় আওয়ামী লীগের শোক দিবসের কাঙ্গালী ভোজ সম্পর্কে প্রতিক্রিয়া জানতে উপজেলা বিএনপির সভাপতি মো. শাহজাহান মজুমদারকে বারবার মুঠোফোনে চেষ্টা করেও কথা বলা যায়নি।

প্রসঙ্গত, বেগম খালেদা জিয়ার গ্রামের গ্রামের বাড়িতে তাঁর এক চাচাতো ভাই পরিবার পরিজন নিয়ে থাকেন। তাঁর প্রয়াত ছোট ভাই সাঈদ এস্কান্দরের ঘরটিও তালাবন্ধ থাকে।

লোকসংবাদ | Loksangbad | The First Bangla Online Newspaper from Noakhali সাজসজ্জা করেছেন মুকুল | কপিরাইট © ২০১৫ | লোকসংবাদ | ব্লগার

Bim থেকে নেওয়া থিমের ছবিগুলি. Blogger দ্বারা পরিচালিত.