সর্বশেষ

সামাজিক, মানবাধিকার আন্দোলনের নেতা ও উন্নয়ন সংগঠক নুরুল আলম মাসুদের ওপর সন্ত্রাসী আক্রমণের ঘটনায় বিশিষ্ট নাগরিকদের বিবৃতি

লোকসংবাদ প্রতিনিধিঃ
সামাজিক, মানবাধিকার আন্দোলনের নেতা ও উন্নয়ন সংগঠক নুরুল আলম মাসুদের ওপর সন্ত্রাসী  আক্রমণের ঘটনায় নিন্দা ও উদ্বেগ প্রকাশ করে বিবৃতি দিয়েছেন নোয়াখালীর বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক, পেশাজীবী সংগঠন ও নাগরিক সমাজের নেতৃবন্দ। সোমবার বিকেলে সলিডারিটি সিটিজেনস্, নোয়াখালী নামে একটি ই-মেইল আইডি থেকে প্রেরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বিভিন্ন সংগঠনের ৫১ জন বিশিষ্ট ব্যক্তি এই প্রধান করে।

বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়-গত ১৬ মে নোয়াখালী জেলা শহরে মানবাধিকার ও সামাজিক আন্দোলনের সংগঠক, উন্নয়ন সংগঠন পাটিসিপেটি রিসার্চ অ্যাকশান নেটওয়ার্ক- প্রান’র প্রধান নির্বাহী নুরুল আলম মাসুদের ওপর আক্রমণের ঘটনা ঘটে। ওইদিন ভোর সাড়ে তিনটায় তিনি মাইজদী হাউজিং এস্টটের বাসা থেকে ঢাকায় যাওযার উদ্দেশ্যে পায়ে হেটে বাস কাউন্টারের দিকে যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে নোয়াখালী সরকারি আবাসিক এলাকায় অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা অস্ত্রের মুখে তার নগদ টাকা, মুঠোফোন সেট সহ মূল্যবান সামগ্রী ছিনিয়ে নেয়। মুখোশধারী দুর্বত্তরা তাকে শারীরিকভাকে নাজেহাল করে এবং প্রাণনাশের হুমকি দেয়।

ঘটনাটিকে সামাজিক ও জননিরাপত্তার জন্য বড় ধরণের হুমকি এবং আতঙ্কের বলে মনে উল্লেখ করে এর সাথে জড়িদের কেউই এখনো আইনের আওতায় না আসায় বিবৃতিদাতাগণ গভীর ক্ষোভ ও উদ্বেগ প্রকাশ করেন। বিবৃতিদাতাগণ বলেন-‘উদ্বেগের বিষয় যে, সাম্প্রতিক সময়ে শহরের বিভিন্ন জায়গায় এ ধরণের আরো কয়েকটি ঘটনা ঘটলেও শান্তির শহর খ্যাত নোয়াখালীতে নুরুল আলম মাসুদের মতো একজন সুখ্যাত ব্যক্তির ওপর এই ন্যাক্কারজনক ঘটনা সাধারণ মানুষের নিরাপত্তার বিষয়টিকে শঙ্কায় ফেলেছে। আমরা এ ঘটনায় জড়িতদের আশু গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি। একইসাথে শহরের জননিরাপত্তা স্বাভাবিক রাখতে এবং জানমালের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের উদ্যোগী ভূমিকা কামনা করছি।’

এ ব্যপারে সুধারাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, নুরুল আলম মাসুদের গতিরোধ করে দুর্বৃত্তরা তার কাছ থেকে নগদ টাকা, মুঠোফোন সেট সহ মূল্যবান সামগ্রী ছিনিয়ে নেয়ার বিষয়টি জানার পর অপরাধীদেরকে আইনের আওতায় আনার জন্যে বিভিন্ন স্থানে অভিযান অব্যাহত রেখেছে পুলিশ। এ ব্যপারে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

বিবৃতিদাতারা হলেন:
১.    জয়নাল আবেদিন অ্যাডভোকেট, সাবেক সভাপতি, নোয়াখালী জেলা আইনজীবী সমিতি
২.    ফজলুল হক বাদল, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ জেলা ইউনিট কমান্ড, নোয়াখালী
৩.    কাজী মানছুরুল হক খসরু অ্যাডভোকেট, জিপি নোয়াখালী
৪.    মোজাম্মেল হক মিলন, কমান্ডার, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ জেলা ইউনিট কমান্ড, নোয়াখালী
৫.    মমতাজুল করিম বাচ্চু, ডেপুটি-কমান্ডার, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ জেলা ইউনিট কমান্ড, নোয়াখালী
৬.    মিয়া মোঃ শাহজাহান, সভাপতি, নোয়াখালী নাগরিক কমিটি
৭.    বখতিয়ার শিকদার, সাবেক সভাপতি, নোয়াখালী প্রেসক্লাব
৮.    আলমগীর ইউসুফ, সভাপতি, নোয়াখালী প্রেসক্লাব
৯.    অ্যাডভোকেট মোল্লা হাবিবুর রাছুল মামুন, সাবেক সম্পাদক, নোয়াখালী জেলা আইনজীবী সমিতি
১০.    এমরান মোহাম্মদ আলী, সভাপতি, সেক্টর কমান্ডারস্ ফোরাম, নোয়াখালী
১১.    আবদুল আউয়াল, প্রধান সমন্বয়কারী, নোয়াখালী রুরাল ডেভেলপমেন্ট সোসাইটি (এনআরডিএস)
১২.    নাজমুস সাকিব পারভেজ, সংগঠক, গণজাগরণ মঞ্চ, নোয়াখালী
১৩.    রাহা নব কুমার, পরিচালক, গান্ধী আশ্রম ট্রাস্ট
১৪.    বিজন সেন, সহ-সভাপতি, সুশাসনের জন্য প্রচারাভিযান (সুপ্র), নোয়াখালী
১৫.    আনম জাহের উদ্দিন, সভাপতি, তৈল-গ্যাস-বিদ্যুৎ-বন্দর, জাতীয় সম্পদ রক্ষা কমিটি, নোয়াখালী
১৬.    গোলাম মোস্তফা ভূইয়া, সাধারণ সম্পাদক, সোনাইমুড়ি অন্ধ কল্যাণ সমিতি
১৭.    আবদুর রহিম চেয়ারম্যান, সভাপতি, গণতান্ত্রিক বাজেট আন্দোলন, নোয়াখালী
১৮.    আবদুর জলিল, সভাপতি, সুশাসন ও মানবাধিকার কমিটি, বেগমগঞ্জ উপজেলা, নোয়াখালী
১৯.    মোঃ নুরুজ্জামান অ্যাডভোকেট, কোঅর্ডিনেটর, ব্লাস্ট নোয়াখালী ইউনিট
২০.    গোলাম আকবর অ্যাডভোকেট, সমন্বয়কারী, নোয়াখালী আইন সহায়তা ট্রাস্ট
২১.    জাফর উল্যাহ বাহার, সাবেক শ্রমিক নেতা
২২.    অ্যাডভোকেট এমদাদ হোসেন কৈশোর, সাধারণ সম্পাদক, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট, নোয়াখালী
২৩.    সাহাব উদ্দীন আহমদ, সদস্য সচিব, একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মুল কমিটি, নোয়াখালী
২৪.    অধ্যাপক মতিন উদ্দিন আহাম্মদ, সভাপতি, বাংলাদেশ কলেজ শিক্ষক সমিতি, নোয়াখালী
২৫.    অ্যাডভোকেট শ্যামল কান্তি দে, সদস্য-সচিব, তৈল-গ্যাস-বিদ্যুৎ-বন্দর, জাতীয় সম্পদ রক্ষা কমিটি, নোয়াখালী
২৬.    নুরু আলম চৌধুরী পারভেজ, ব্যবসায়ী
২৭.    জামাল হোসেন বিষাদ, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক, নোয়াখালী প্রেসক্লাব
২৮.    মোর্শেদা আক্তার ডেইজি, সম্পাদক, উদীচী সাংস্কৃতিক গোষ্ঠী, নোয়াখালী
২৯.    আনোয়ার হোসেন, সভাপতি, বাংলাদেশ ক্ষেত মজুর ইউনিয়ন, নোয়াখালী
৩০.    মহি উদ্দিন ফারুক, সহ-সভাপতি, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট, নোয়াখালী
৩১.    আমিনুজ্জামান, পরিচালক বন্ধন
৩২.    মোহাম্মদ রায়হান, সভাপতি প্রভাতী ক্লাব, সোনাপুর, নোয়াখালী
৩৩.    আবুল কাশেম, সাবেক চেয়ারম্যান, একলাশপুর ইউনিয়ন পরিষদ, নোয়াখালী
৩৪.    মনু গুপ্ত, অথারাইজড্ অফিসিয়াল, রিমোল্ড
৩৫.    আবু নাছের মঞ্জু, সচিব, খাদ্য অধিকার প্রচারাভিযান, নোয়াখালী
৩৬.    অ্যাডভোকেট আজিজুল হক বক্শী, আইনজীবী, নোয়াখালী জজ কোর্ট
৩৭.    মহিন উদ্দিন চৌধুরী লিটন, সংগঠক, তৈল-গ্যাস-বিদ্যুৎ-বন্দর- জাতীয় সম্পদ রক্ষা কমিটি
৩৮.    আবদুল আউয়াল, নির্বাহী পরিচালক, এসো গড়ি উন্নয়ন সংস্থা
৩৯.    তারেকশ্বর দেবনাথ নান্টু, সভাপতি, ক্ষেতমজুর ও কৃষক ফ্রন্ট, নোয়াখালী
৪০.    পপি রহমান, নির্বাহী পরিচালক, ঘরণী মহিলা উন্নয়ন সংস্থা
৪১.    রওশন আক্তার লাকী, পরিচালক, নারী উন্নয়ন মেলা
৪২.    মজিবুল হক, সভাপতি, ক্ষেত-মজুর সমিতি, নোয়াখালী
৪৩.    কামাল হোসেন মাসুদ, সদস্য সচিব, প্রগতি লেখক সংঘ, নোয়াখালী
৪৪.    খায়ের ইমতিয়াজ মাসুদ দাউদ
৪৫.    জহির উদ্দিন, ক্রীড়া সংগঠক
৪৬.    ম. পান্না উল্যাহ, সংগঠক, সুরঞ্জনা কবি পরিবার
৪৭.    শহীদুল ইসলাম মুকুল, অনলাইন এক্টিভিস্ট
৪৮.    কবি হাবীব ইমন, কলাম লেখক
৪৯.    দিদারুল আলম, সম্পাদক, সমকাল সুহৃদ সমাবেশ
৫০.    মোহাম্মদ ইমরান হোসেন, সাধারণ সম্পাদক, প্রথম আলো বন্ধুসভা
৫১.    সজীব সৌরভ চন্দ, সমন্বয়কারী, আয়না বাংলা ফটোগ্রাফার্স গ্রুপ

লোকসংবাদ | Loksangbad | The First Bangla Online Newspaper from Noakhali সাজসজ্জা করেছেন মুকুল | কপিরাইট © ২০১৫ | লোকসংবাদ | ব্লগার

Bim থেকে নেওয়া থিমের ছবিগুলি. Blogger দ্বারা পরিচালিত.