সর্বশেষ

নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১৪-১৫ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি ১ মার্চ

লোকসংবাদ প্রতিবেদন
নোয়াখালী বিজ্ঞান ও ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ২২-২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৫ অনুষ্ঠিতব্য ভর্তি কার্যক্রম স্থগিত করা হয়েছে। সোমবার বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার ও ভর্তি কমিটির সচিব প্রফেসর মো. মমিনুল হক স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, অনিবার্য কারণে ২০১৪-১৫ শিক্ষাবর্ষের প্রথম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণীর ২২-২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৫ অনুষ্ঠিতব্য বিষয় নির্বাচন ও ভর্তি কার্যক্রম স্থগিত করা হয়েছে। বিষয় নির্বাচন ও ভর্তি কার্যক্রম নিম্নোক্ত সময়সূচী অনুযায়ী অনুষ্ঠিত হবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়।
১ মার্চ ২০১৫ সকাল ৯ টা থেকে গ্রুপ ‘এ’ মেধাতালিকা ১-৩০০ পর্যন্ত।
২ মার্চ ২০১৫ সকাল ৯টা থেকে গ্রুপ ‘এ’ মেধাতালিকা ৩০১-৬০০ পর্যন্ত ও মুক্তিযোদ্ধা কোটায় পূর্ব ঘোষিত মেধাতালিকায় অন্তর্ভুক্ত ও উত্তীর্ণ সকল ছাত্রছাত্রী এবং উপজাতি কোটার মেধাতালিকার প্রথম ১০ জন।
৩ মার্চ ২০১৫ সকাল ৯টা থেকে গ্রুপ ‘বি’ মেধাতালিকা ১-৩০০ পর্যন্ত।
৪ মার্চ ২০১৫ সকাল ৯টা থেকে গ্রুপ ‘বি’ মেধাতালিকা ৩০১-৬০০ পর্যন্ত ও মুক্তিযোদ্ধা কোটায় পূর্ব ঘোষিত মেধাতালিকায় অন্তর্ভুক্ত ও উত্তীর্ণ সকল ছাত্রছাত্রী এবং উপজাতি কোটার মেধাতালিকার প্রথম ১০ জন।
৫ মার্চ ২০১৫ সকাল ৯টা থেকে গ্রুপ ‘সি’ মেধাতালিকা ১-১০০ পর্যন্ত ও মুক্তিযোদ্ধা কোটায় পূর্ব ঘোষিত মেধাতালিকায় অন্তর্ভুক্ত ও উত্তীর্ণ সকল ছাত্রছাত্রী এবং উপজাতি কোটার মেধাতালিকার প্রথম ০২ জন।
৫ মার্চ ২০১৫ দুপুর ১২টা থেকে গ্রুপ ‘ডি’ মেধাতালিকা ১-১০০ (বিজ্ঞান), ১-৮০ (বাণিজ্য) এবং ১-৬০ (মানবিক) পর্যন্ত ও মুক্তিযোদ্ধা কোটায় নতুন ঘোষিত মেধাতালিকায় অন্তর্ভুক্ত এবং উত্তীর্ণ সকল ছাত্রছাত্রী (বিজ্ঞান/বাণিজ্য) এবং উপজাতি কোটার মেধাতালিকার প্রথম ০৫ জন (বিজ্ঞান/বাণিজ্য)।
‘ডি’ গ্রুপের মুক্তিযোদ্ধা কোটার (বিজ্ঞান/বাণিজ্য) পূর্বের তালিকা রহিত করে নতুন তালিকা এবং উপজাতি কোটার (বিজ্ঞান) তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। বিস্তারিত ওয়েবসাইটে পাওয়া যাচ্ছে।
ভর্তির অনুমতি প্রাপ্ত প্রার্থীদেরকে ১-৫ মার্চ ২০১৫ এর মধ্যে অবশ্যই ভর্তি হতে হবে। উল্লেখ্য ‘এ’ গ্রুপে ৩০০ জন, ‘বি’ গ্রুপে ৩৬০ জন ‘সি’ গ্রুপে ৬০ জন এবং ‘ডি’ গ্রুপে ১৪০ জন ছাত্রছাত্রী মেধাক্রম অনুযায়ী ভর্তির সুযোগ পাবে।

‘এ’ গ্রুপে মুক্তিযোদ্ধা কোটায় ১০ জন এবং উপজাতি কোটায় ৫জন ‘বি’ গ্রুপে মুক্তিযোদ্ধা কোটায় ১২ জন এবং উপজাতি কোটায় ৬জন, ‘সি’ গ্রুপে মুক্তিযোদ্ধা কোটায় ২ জন এবং উপজাতি কোটায় ১ জন এবং ‘ডি’ গ্রুপে মুক্তিযোদ্ধা কোটায় ৩ জন (বিজ্ঞান), ২ জন (বাণিজ্য) এবং উপজাতি কোটায় ১ জন (বিজ্ঞান), ১ জন (বাণিজ্য) ছাত্রছাত্রী মেধাক্রম অনুযায়ী ভর্তির সুযোগ পাবে। আসন খালি থাকা সাপেক্ষে পরবর্তী মেধাক্রমানুসারে ভর্তি করা হবে।
মুক্তিযোদ্ধা কোটায় ছাত্রছাত্রী ভর্তির ক্ষেত্রে সরকারী পরিপত্র অনুযায়ী (মুক্তিযোদ্ধার সন্তান অগ্রাধিকার পাবে) ভর্তি করা হবে। এ প্রেক্ষিতে মুক্তিযোদ্ধা কোটায় পূর্ব ঘোষিত মেধাতালিকায় অন্তর্ভুক্ত ও উত্তীর্ণ সকল ছাত্রছাত্রীকে স্ব স্ব গ্রুপের ভর্তির দিন উপস্থিত হতে হবে।

ভর্তির প্রয়োজনীয় কাগজপত্র: ১. এসএসসি এবং এইচএসসি’র মূল মার্কশিট এবং প্রত্যেকটির একটি করে সত্যায়িত কপি অবশ্যই সঙ্গে আনতে হবে, ২. পর্যবেক্ষক কর্তৃক স্বাক্ষরিত ছবিসহ রেজিস্ট্রেশন কার্ড (এইচএসসি বা সমমান), ৩. পাঁচ কপি পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ছবি, ৪. নাগরিকত্ব সার্টিফিকেট/জন্মনিবন্ধন/পাসপোর্ট এর সত্যায়িত কপি, ৫. মুক্তিযোদ্ধা কোটায় ভর্তিচ্ছু প্রার্থীদের পিতামাতার অনুকুলে সরকার কর্তৃক ইস্যুকৃত মুক্তিযোদ্ধা সার্টিফিকেট এবং প্রয়োজনে দাদা-দাদী, নানা-নানীর সম্পর্কের সার্টিফিকেটের মূল কপি এবং সত্যায়িত কপি, ৬. উপজাতি প্রার্থীদের ক্ষেত্রে উপজাতি ভিত্তিক প্রত্যয়ন পত্রের মূল কপি ও সত্যায়িত কপি এবং ৭. প্রথম টার্মের ক্রেডিট আওয়ার ফিসহ অন্যান্য ফি-চার্জ বাবদ ‘এ’ গ্রুপের জন্য আনুমানিক ১৯,০০০.০০ (ঊনিশ হাজার) টাকা, ‘বি’ গ্রুপের জন্য আনুমানিক ১৯,০০০.০০ (ঊনিশ হাজার) টাকা, ‘সি’ গ্রুপের জন্য আনুমানিক ১৭,০০০.০০ (সতের হাজার) টাকা এবং ‘ডি’ গ্রুপের জন্য আনুমানিক ১৭,৫০০.০০ (সতের হাজার পাঁচশত) টাকা ভর্তি হওয়ার জন্য সঙ্গে আনতে হবে।

  • আবু নাছের মঞ্জু

লোকসংবাদ | Loksangbad | The First Bangla Online Newspaper from Noakhali সাজসজ্জা করেছেন মুকুল | কপিরাইট © ২০১৫ | লোকসংবাদ | ব্লগার

Bim থেকে নেওয়া থিমের ছবিগুলি. Blogger দ্বারা পরিচালিত.