সর্বশেষ

সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের বাড়িঘর-মন্দিরে ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় আনজীবী সমিতির তদন্ত কমিটি গঠিত

নোয়াখালীর রাজগঞ্জে হিন্দুদের বাড়িঘর-মন্দিরে হামলা, ভাংচুর, লুটপাট ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা তদন্তে জেলা আইনজীবী সমিতির পক্ষ থেকে একটি কমিটি করা হয়েছে। সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট বি.ইউ.এম কামরুল ইসলামকে আহবায়ক এবং সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট কাজী কবির আহমদকে সদস্য সচিব করে ১২ সদস্য বিশিষ্ট ওই কমিটি করা হয়। বুধবার জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক অ্যাভোকেট কাজী কবির আহমদ স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়।
সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, মঙ্গলবার দুপুরে জেলা আইনজীবী সমিতির এক তলবী সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায়  এ জাতীয় ঘটনার জন্য নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করা হয় এবং ঘটনার তদন্তে ১২ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি  গঠিত হয়।

কমিটির অন্যান্য সদস্যরা হলেন- অ্যাডভোকেট আবদুল কাদের, সুধীর চন্দ্র সাহা, রুহুল আমিন খাঁন, এ.বি.এম জাকারিয়া, এ.টি.এম মহিব উল্লাহ, কাজী মানছুরুল হক খসরু, বাবুল কান্তি মজুমদার, নির্মল চন্দ্র দেবনাথ, সিরাজ মিয়া ও আহমেদ জামিল মিতুন।

আগামী ৭ই মার্চ দুপুরে তদন্ত কমিটি সরজমিনে ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্থদের বাড়িঘর পরিদর্শনে যাবে।

উল্লেখ: গত বৃহস্পতিবার মানবতা বিরোধী ট্রাইবুনালে জামায়াত নেতা দেলাওয়ার হোসেন সাঈদীর রায় ঘোষনার পর দুর্বৃত্তরা হিন্দুদের বাড়িঘর-মন্দিরে হামলা, ভাংচুর, লুটপাট ও অগ্নিসংযোগ করে। 


  • আবু নাছের মঞ্জু

লোকসংবাদ | Loksangbad | The First Bangla Online Newspaper from Noakhali সাজসজ্জা করেছেন মুকুল | কপিরাইট © ২০১৫ | লোকসংবাদ | ব্লগার

Bim থেকে নেওয়া থিমের ছবিগুলি. Blogger দ্বারা পরিচালিত.