সর্বশেষ

প্রজন্ম চত্বরের ‘অদলীয়’ আন্দোলন বড় দলগুলোকে বাতিল করেছে- নোয়াখালীতে জেএসডির সম্মেলনে আ স ম রব

জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল জেএসডি সভাপতি সাবেক মন্ত্রী আ স ম আবদুর রব বলেছেন, প্রজন্ম চত্বরের গনজাগরণে যে চেতনার বীজ রোপিত হয়েছে, তা বিদ্যমান রানৈতিক দলসমূহ অনুধাবন করতে ব্যর্থ হয়েছে। শাহবাগের আন্দোলন প্রকৃতপক্ষে রাজনৈতিক হলেও ‘অদলীয়’ রাখার মাধ্যমে রাজনীতিতে এর প্রভাব রয়েছে গভীর-ব্যপক ও বিস্তৃত। এই ‘অদলীয়’ আন্দোলন বিদ্যমান বড় দলগুলোকে বাতিল করেছে। যা তৃতীয় রাজনৈতিক শক্তির অনিবার্য্যতাই প্রমাণ করেছে।
তিনি শনিবার বিকেলে কবিরহাট উপজেলার হাজী ইদ্রিস চত্ত্বরে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল জেএসডি উপজেলা শাখার সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

আ স ম রব আরো বলেন, গনজাগরণ যুদ্ধাপরাধীদের বিচার নিয়ে সীমাবদ্ধ থাকবেনাÑ সকল অন্যায়, অত্যাচার, ঘুষ, দুর্নীতি ও দু:শাসন এবং একদলীয় রাজনীতির বিপরীতে সমাজ পরিবর্তনের ভিত্তি রচিত করেছে। এ চেতনাকে লালন করে বিদ্যমান রাষ্ট্রকাঠামো পরিবর্তন করতে হবে, মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বাস্তবায়ন করতে হবে।

উপজেলা জেএসডি নেতা মাষ্টার আবুল কালামের সভাপতিত্বে সম্মেলনে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য গোলাম হায়দার বিএসসি, কবিরহাট পৌরসভার মেয়র জহিরুল হক রায়হান, সাবেক মেয়র ফখরুল ইসলাম দুলাল, জেএসডির কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক কামাল উদ্দিন পাটোয়ারী, সদস্য মিসেস তানিয়া রব, জেলা কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আবুল কাশেম, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট কাউসার নিয়াজী, জেএসডি নেতা আবদুল্যাহ আল তারেক ও আমিন উল্যা বাহার প্রমুখ।

রাজগঞ্জের ঘটনার জন্য প্রশাসন দায়ী: এরআগে জেএসডি নেতা আ স ম রব বেগমগঞ্জের রাজগঞ্জে গত ২৮ ফেব্র“য়ারি জামায়াত-শিবিরের তান্ডবে হিন্দুদের ক্ষতিগ্রস্থ বাড়িঘর ও মন্দির পরিদর্শন করেন। এ সময় আ স ম রব ঘটনার জন্য প্রশাসনের ব্যর্থতাকে দায়ী করে বলেন, সরকার সত্যিকার অর্থে হিন্দুদের ওপর হামলার ঘটনার বিচার করতে চাইলে প্রশাসনকে তাঁদের ব্যর্থতার জন্য আদালতে দাঁড় করানো উচিত।

তিনি আরো বলেন, জামায়াত নেতা সাঈদীকে ফাঁসির রায় দিয়েছে যুদ্ধাপরাধ ট্রাইবুনাল, আর এই ট্রাইবুনাল ঘটন করেছে সরকার। এখানে সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়ের অপরাধ কি ছিল যে, এমন নির্মমভাবে জ্বালিয়ে পুড়িয়ে তাদের সবকিছু শেষ করে দেয়া হলো। আর ঘন্টার পর ঘন্টা এ তান্ডব চালানো হলেও তখন স্থানীয় প্রশাসন কোথায় ছিল এর জবাব তাদেরকে দিতে হবে। তিনি সংখ্যালঘুদের পাশে দাঁড়িয়ে সকলকে একযোগে হামলাকারীদের প্রতিরোধ করার আহ্বান জানান। আ স ম রব ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে শাড়ি বিতরণ করেন। এ সময় তার সাথে সাংবাদিক সমিতির কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান চৌধুরী, ব্যবসায়ী সমিতির নেতা সালাউদ্দিন মাস্টার, নূর রহমান চেয়ারম্যান, সুলতান চেয়ারম্যান, আবদুর জলিল চেয়ারম্যান, ইকবাল হোসেন ও জুনায়েদ নবী চৌধুরীসহ জেএসডি নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

ছবি ক্যাপশন: নোয়াখালীর রাজগঞ্জে হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত সংখ্যলঘু হিন্দু সম্প্রদায়ের মন্দির-বাড়িঘর পরিদর্শন করেন জেএসডি সভাপতি আ স ম আবদুর রব।


  • আবু নাছের মঞ্জু

লোকসংবাদ | Loksangbad | The First Bangla Online Newspaper from Noakhali সাজসজ্জা করেছেন মুকুল | কপিরাইট © ২০১৫ | লোকসংবাদ | ব্লগার

Bim থেকে নেওয়া থিমের ছবিগুলি. Blogger দ্বারা পরিচালিত.