সর্বশেষ

নোয়াখালীতে প্রকৌশলীর মরদেহ উদ্ধার

নোয়াখালীতে শুক্রবার এক প্রকৌশলীর মরদেহ উদ্ধার হয়েছে। নিহত সুমন ভৌমিক(৩২) জেলা শহরের মাস্টার পাড়ার মাওলা ম্যানশনে ভাড়া থাকতেন। ব্রাক্ষনবাড়িয়া জেলার আশুগঞ্জের লালপুর গ্রামের বিনোদ ভৌমিকের ছেলে সুমন ঘোড়াশাল সার কারখানায় প্রকৌশলী হিসেবে কর্মরত ছিলেন। গোলযোগের মধ্যে সুমনকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে স্বজনদের ধারণা।
নিহত সুমন ভৌমিকের বড় বোন সুমি দাস জানিয়েছেন, গত বৃহস্পতিবার কর্মস্থল থেকে নোয়াখালীর উদ্দেশ্যে রওনা হন সুমন ভৌমিক। রাত পৌনে ১০টা থেকে সোনাইমুড়িতে গোলযোগের কারণে যান চলাচল বন্ধ থাকায় তিনি পায়ে হেটে মাস্টার পাড়ায় বাসার উদ্দেশে রওনা হন। এরপর থেকে পরিবারের সাথে তাঁর যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যায়।

খবর পেয়ে শুক্রবার সন্ধায় সোনাইমুড়ি উপজেলার বজরা হাসপাতাল  থেকে তার মরদেহ সনাক্ত করে স্বজনরা নিয়ে আসেন। সুমনের মাথায় আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। রাতে চৌমুহনী মহাশ্মশানে তাঁকে দাহ করা হয়েছে।

নিহত সুমনের স্ত্রী অনিতা ভৌমিক সোনালী ব্যাংক মাইজদী কোর্ট শাখার জুনিয়র অফিসার। তাদের এক বছরের একটি ছেলে আছে।


  • আবু নাছের মঞ্জু

লোকসংবাদ | Loksangbad | The First Bangla Online Newspaper from Noakhali সাজসজ্জা করেছেন মুকুল | কপিরাইট © ২০১৫ | লোকসংবাদ | ব্লগার

Bim থেকে নেওয়া থিমের ছবিগুলি. Blogger দ্বারা পরিচালিত.