সর্বশেষ

শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের আন্দোলনের মুখে পিছু হটলেন জেলা প্রশাসক/ নোয়াখালী সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা বাতিলের ঘটনায় সড়ক অবরোধ

আবু নাছের মঞ্জু
নোয়াখালী সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শুক্রবারের ভর্তি পরীক্ষা স্থগিত করা এবং গত বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত হয়ে যাওয়া পরীক্ষার ফলাফল বাতিলের ঘটনায় বিক্ষুদ্ধ শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা সড়ক অবরোধ করে।

শুক্রবার সকাল ১১টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত দুই ঘন্টা মাইজদী -চৌমুহনী সড়ক অবরোধের কারণে জেলা শহরে দীর্ঘ যানজট দেখা দেয়। আন্দোলনকারী জেলা প্রশাসকের বিরুদ্ধে ভর্তি বাণিজ্যের অভিযোগ এনে পরীক্ষা বন্ধ ও ফলাফল নিয়ে অনৈতিক হস্তক্ষেপের নিন্দা জানান। এ সময়  ক্ষুদ্ধ শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা জেলা প্রশাসকের বিরুদ্ধে নানা রকম শ্লোগান দিতে থাকেন।
১২টার দিকে জেলা প্রশাসকের প্রতিনিধি হিসেবে ঘটনাস্থলে আসেন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট আবু সালেহ মো. ফেরদৌস খান। এক ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে ব্যর্ত হন তিনি। এক পর্যায়ে আন্দোলনরত শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের দাবি মেনে বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত পরীক্ষার ফলাফল ঘোষণার আশ্বাস দিলে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছে, জেলার একমাত্র সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিতে শুক্রবার সকালে শীত উপেক্ষা করে বিভিন্ন এলাকার থেকে শিক্ষার্থীরা আসতে থাকে। সকাল ১০টায় ষষ্ঠ ও অষ্টম শ্রেণীর পরীক্ষা শুরু হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু পরীক্ষা শুরু না হওয়ার কারণ জানার পর হতাশ হয়ে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা নোয়াখালী প্রেসক্লাবের সামনে গিয়ে অবস্থান নেয়। এর আগে গতরাতে শিক্ষকদের বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ এনে বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত পঞ্চম ও সপ্তম শ্রেণীর পরীক্ষা বাতিল এবং শুক্রবার অনুষ্ঠিতব্য ষষ্ঠ ও অষ্টম শ্রেণীর পরীক্ষা স্থগিত করেন ভর্তি কমিটির সভাপতি জেলা প্রশাসক মো. সিরাজুল ইসলাম।

অন্যদিকে জেলা প্রশাসকের বিরুদ্ধে ভর্তি পরীক্ষায় নিজের পন্দের শিক্ষার্থীদের পাশ করানোর জন্য অনৈতিক প্রভাব খাটানোর অভিযোগ করেন পরীক্ষা কেন্দ্র সচিব সহ সংশ্লিষ্ঠ বিদ্যালয়েরে শিক্ষকরা।

শুক্রবার বিকেলে নোয়াখালী সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মতিলাল সাহা জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত পরীক্ষা বাতিলের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের কথা লিখিতভাবে স্কুল কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক। তাই আর কোন বাধা না থাকায় বৃহস্পতিবারের পরীক্ষার ফলাফল যথারীতি শনিবার ঘোষণা করা হবে। আর শুক্রবারের ৬ষ্ঠ ও ৮ম শ্রেণীর পরীক্ষার পরবর্তী সময় সূচি ঠিক করে জানিয়ে দেয়া হবে।

এ ব্যপারে জেলা যোগাযোগ করা হলে পরীক্ষা বাতিলের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের কথা স্বীকার করে প্রশাসক মো. সিরাজুল ইসলাম জানান, কোচিং বাণিজ্যের সাথে জড়িত শিক্ষকরা শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের সড়ক অবরোধে ইন্ধন দিয়েছে। পরীক্ষা বাতিলের সিন্ধান্ত প্রত্যাহারের জন্য রাস্তায় নামার দরকার হয় না, আমার কাছে আসলেই হয়।


  • আবু নাছের মঞ্জু

লোকসংবাদ | Loksangbad | The First Bangla Online Newspaper from Noakhali সাজসজ্জা করেছেন মুকুল | কপিরাইট © ২০১৫ | লোকসংবাদ | ব্লগার

Bim থেকে নেওয়া থিমের ছবিগুলি. Blogger দ্বারা পরিচালিত.