সর্বশেষ

বাল্যবিয়ে: নোয়াখালীতে বর ও কনে বাবা মা সহ ১৬ জনের জরিমানা

নোয়াখালীর সেনবাগে অপ্রাপ্ত বয়স্ক এক স্কুল ছাত্রীকে বিয়ে দেওয়ার অপরাধে ১৬ জনকে জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।
সেনবাগ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক মুহাম্মদ আনোয়ার পাশা বুধবার এ রায় দেন। দণ্ড প্রাপ্তরা রাতে জরিমানা পরিশোধ করে মুক্ত হন।
ইউএনও জানান, পৌর এলাকার চাঁদপুর গ্রামের মো. মোস্তফার মেয়ে ফাহমিদা আক্তার তিষ্ণাকে (১৬) গত ১৪ মার্চ ফেণীর সোনাগাজী উপজেলার রাজাপুর গ্রামের ছিদ্দিক উল্লার ছেলে আজিজুর রহমান মোরশেদের (৩০) সঙ্গে বিয়ে ঠিক করা হয়েছিল। তিষ্ণা সেনবাগ সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এবার এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছিল।
বিষয়টি জানার পর গত ১৩ মার্চ উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে কনের পরিবারকে ওই বিয়ে দেওয়া বেআইনী জানিয়ে তাতে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছিল।
এরপরও উভয় পরিবার গোপনে ফেণীতে বিয়ের সকল কাজ সম্পন্ন করে। খবরটি জানান পর বর ও কনের বাবা মা সহ বিয়ের সাথে সংশ্লিষ্ট ১৬ জনকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে বুধবার সন্ধ্যার মধ্যে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়।
অভিযুক্তদের বক্তব্য শুনে ভ্রাম্যমান আদালত বর আজিজুর রহমান মোরশেদ, বরের বাবা মো. ছিদ্দিক উল্লা, কনের বাবা মোঃ মোস্তফা ও মা বিবি আয়েশা প্রত্যেককে তিন হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে ১ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়। একই সময় আদালত কনের তিন নিকট আত্মীয় মো. মজিবুল হক, নুর নবী ও আমিনুল হককে দুই হাজার টাকা করে জরিমানা, অনাদায়ে ১ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড এবং বরের আটজন নিকট আত্মীয় এনামুল হক, মজিবুর রহমান, জাহানারা বেগম, সুলতানা আক্তার, সাহেদা আক্তার, জামাল হোসেন, মোঃ কামাল হোসেন ও মোঃ মিজানুর রহমানকে দুই হাজার টাকা করে জরিমানা; অনাদায়ে ১ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ডের আদেশ দেয়।
ইউএনও বলেন, ‘বিয়ের কাজি এবং মৌলভীর খোজ খবর নেওয়া হচ্ছে। সবকিছু নিশ্চিত হয়ে তাদেরকেও আইনের আওতায় আনা হবে’।

লোকসংবাদ | Loksangbad | The First Bangla Online Newspaper from Noakhali সাজসজ্জা করেছেন মুকুল | কপিরাইট © ২০১৫ | লোকসংবাদ | ব্লগার

Bim থেকে নেওয়া থিমের ছবিগুলি. Blogger দ্বারা পরিচালিত.