সর্বশেষ

আদালতে মামলা।। বাদীর বাসায় গিয়ে সন্ত্রাসীদের হুমকি।। ক্রিকেট আম্পায়ার ও খেলোয়াদের মানববন্ধন

নোয়াখালী জেলা ক্রিড়া সংস্থার কর্মকর্তাদের আর্থিক কেলেংকারিসহ বিভিন্ন অনিয়মের বিরুদ্ধে মানববন্ধন করেছে খেলোয়াড় ও ক্রিড়া সংগঠকরা। সোমবার দুপুরে  নোয়াখালী প্রেস ক্লাবের সামনের সড়কে ঘন্টব্যাপী এ মানববন্ধন কর্মসূচির আয়োজন করে ক্রিকেট আম্পায়ার এসোসিয়েশান ও ক্রিকেট কল্যান সমিতি।

মানবন্ধনে অংশগ্রহণকারী ক্রিকেট আম্পায়ার এসোসিয়েশন ও ক্রিকেট কল্যান সমিতির নেতৃবৃন্দ অভিযোগ করেন, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড কর্তৃক অনুর্দ্ধ ১৪ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট (২০০৯-২০১০ এর) চট্টগ্রাম বিভাগের ৯টি খেলা নোয়াখালীর শহীদ ভুলু স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়েছিল। টুর্নামেন্টে আম্পায়নের জন্য ক্রিকেট বোর্ড থেকে জেলা ক্রিড়া সংস্থাকে ১৭ হাজার টাকা  দেয়া হয়েছিল। কিন্তু বারবার তাগিদের পরও গত এক বছরেও ক্রীড়া সংস্থার কর্মকর্তারা আম্পায়ারদের ঐ টাকা না দিয়ে নিজেরাই আত্মসাৎ করে বসেন।
এদিকে পাওনা টাকা চাইতে গেলে ক্রিড়া সংস্থার কর্মকর্তারা জেলা ক্রিকেট লীগে স্থানীয় অম্পায়ারদের বাদ দিয়ে বাইরের আম্পায়াদের দিয়ে খেলা পরিচালনার হুমকি দেন। অন্যদিকে ক্রীড়া সংস্থার ক্রিকেট উপ-কমিটির কয়েকজন কর্মকর্তা প্রতি বছর ক্রিকেট লীগের নামে এন্টি ফি বাবত মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিয়ে পরবর্তীতে নানা অজুহাতে খেলা বন্ধ করে দেন।
মানববন্ধনে কর্মসূচীতে জেলা ক্রিকেট আম্পায়ার্স এসােসিয়েশনের সহ-সভাপতি ধীমান মজুমদার, সাধারন সম্পাদক মিনহাজ উদ্দিন সুফল, সহ-সাধারন সম্পাদক দেবাষীশ ভৌমিক অপু, কোষাধ্যক্ষ আলাউদ্দিন ইমু, সদস্য স্বদেশ মজুমদার সহ দেড় শতাধিক খেলোড়ার অংশগ্রহন করেন।

মামলা করায় ক্রীড়া সংস্থার সদস্যের বাসায় গিয়ে সন্ত্রাসীদের হুমকি: জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাত কর্মকর্তার বিরুদ্ধে আর্থিক কেলেংকারিসহ বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগে আদালতে মামলা দায়েরের জের ধরে ক্রীড়া সংস্থার সদস্য সাংবাদিক নিজামউদ্দিন পিন্টুর বাসায় ডুকে সন্ত্রাসীরা হুমকি দিয়েছে। রোববার দুপুরে এই ঘটনা ঘটে।
সাংবাদিক পিন্টু জানান, তিনি গত ২৫ নভেম্বর জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাত কর্মকর্তার বিরুদ্ধে আর্থিক কেলেংকারিসহ বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগে জেলা জজ আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলার জের ধরে রোববার দুপুরে ১৫-১৬ জনের একদল সন্ত্রাসী জেলা শহেরর শহীদ ভুলু ষ্টেডিয়ামের সামনে তাঁর বাসায় গিয়ে হুমকি দিয়ে আসে। সন্ত্রসীরা পিন্টুর বৃদ্ধা মাকে শাসিয়ে আসে, বিকেলের মধ্যে মামলা প্রত্যাহার না করলে পিন্টুর হাত পা ভেঙ্গে দেয়া হবে। সন্ত্রসীরা বাসায় ও বাসর নিচ তলায় একটি কোম্পানীর শোরুম ভাঙচুরেরও হুমকি দেয়।
খবর পেয়ে সুধারাম থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।ে এছাড়া বিভিন্ন জাতীয় দৈনিকের প্রতিনিধিরাও সেখানে যান।

আদালতের কারণ দর্শানোর নোটিস: মামলা নোয়াখালী জেলা ক্রীড়া সংস্থা আয়োজিত ম্যাক্স ক্রিকেট লীগের উপ-কমিটি কর্তৃক ক্লাব তালিকাভূক্তকরণে অনিয়ম ও স্বজনপ্রীতি এবং ক্রীড়া সংস্থার আর্থিক অনিয়মসহ নানা অভিযোগ এনে স্থানীয় ৫ টি ক্লাবের কর্মকর্তা বাদি নোয়াখালী সদর সিনিয়ন সহকারী জজ এ এস এম জিল্লূর রহমানের আদালতে গত ২৫ নভেম্বর মামলা দায়ের করেন। শুনানির পর আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে  ক্রীকেট লীগ স্থগিতের উপর অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞার আদেশ প্রদান করেন এবং   বিবাধী ডিসি ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার সভাপতি, এডিসি জেনারেল ও সংস্থার সহ-সভাপতি, এডিএম ও সংস্থার সহ-সভাপতি, সংস্থার সাধারণ সম্পাদক সামছুল হাসান মিরন, কোষাধ্যক্ষ মাহমুদ হোসেন ও দ্বিতীয় যুগ্ম সম্পাদক মঞ্জুর হোসেন জেলা ক্রিড়া অফিসারকে আদেশের নোটিস প্রাপ্তির ১০ শুনানির পর আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে (গত ৪ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল) ক্রিকেট লীগ স্থগিতের উপর অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা জারি করে স্থিতিবস্থা বজায় রাখায় নির্দেশ  দেন এবং  আদালত  বিবাদীগণকে  নোটিস প্রাপ্তির ১০ দিনের মধ্যে কারণ দর্শানের নির্দেশও প্রদান করেন। 
গত ২৫শে নভেম্বর প্রজন্ম সংসদ ক্লাবের নিজাম উদ্দিন পিন্টু, আগমনী ক্লাবের মনির চৌধরী, ল’ইয়ার্স কলোনী ক্লাবের মোঃ মাহতাব উদ্দিন,অগ্রদূত ক্রীড়া সংসদের মাহমুদুল হক ও অনন্তপুর স্পোটিং ক্লাবের মেজবাহ উদ্দিন বাদী হয়ে  মামলাটি দায়ের  করেন।

লোকসংবাদ | Loksangbad | The First Bangla Online Newspaper from Noakhali সাজসজ্জা করেছেন মুকুল | কপিরাইট © ২০১৫ | লোকসংবাদ | ব্লগার

Bim থেকে নেওয়া থিমের ছবিগুলি. Blogger দ্বারা পরিচালিত.