সর্বশেষ

ভর্তি বাণিজ্য ।। হাতিয়া দ্বীপ সরকারি কলেজে ছাত্রলীগের দু’গ্র“পের সংঘর্ষে আহত ২০

নোয়াখালীর হাতিয়া দ্বীপ সরকারি কলেজে একাশদ শ্রেণীতে ছাত্র ভর্তিকে কেন্দ্র করে বুধবার দুপুরে  ছাত্রলীগের দুই গ্র“পের মধ্যে সংঘর্ষে উভয় গ্র“পের অন্তত ২০ জন হয়েছে। গুরুতর আহত ১২ জনকে উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে  ভর্তি করা হয়েছে।  হাতিয়া থানা পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, দুপুরে কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ইরাজ উদ্দিনের নেতৃত্বে একদল ছাত্র অফিস কক্ষে গিয়ে তার সমর্থক ৫০ ছাত্রকে ফি ছাড়া ভর্তির দাবি জানায়। এসময় ভর্তির কাজে নিয়োজিত কর্মচারীরা এতে রাজি না হওয়ায় ইরাজ তার সমর্থকদের নিয়ে ভর্তি প্রক্রিয়া বন্ধ করে খাতাপত্র ছিনিয়ে নিয়ে অফিস কক্ষে তালা ঝুলিয়ে দেয়ার চেষ্টা করে। এসময় কলেজ ছাত্রলীগের সহ-সাধারণ সম্পাদক মোঃ তুহিনের নেতৃত্বে একদল ছাত্র  ইরাজ ও তার সমর্থকদের  বাধা দেয়। এ নিয়ে দু’গ্র“পের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে উভয় গ্র“পে সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়ে।

সংঘর্ষে কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি ইরাজ উদ্দিন (২১), হাসান (২০), রাজু (২২), আজিজ (১৯), জহির (১৮), শাহদাত (২০), শামীম (১৯), জুলফিকার ( ২৩), জুয়েল (২০), রহিম (২১), তুহিন (২১), নুরুল আমিন (২১) আহত হয়। আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। অন্য আহতদের প্রাথমিক চিকিৎসা পর ছেড়ে দেওয়া হয়।
কলেজ অধ্যক্ষ দিলীপ কুমার পাল সংঘর্ষের কথা স্বীকার করলেও সংঘর্ষে ঘটনা কলেজের বাহিরে ঘটেছে বলে দাবি করেন। এ ঘটনার পর কলেজে ছাত্র ভর্তি প্রক্রিয়া বন্ধ রয়েছে। 
হাতিয়া থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: জহিরুল ইসলাম সংঘর্ষের ঘটনা স্বীকার করে বলেন, এ বিষয়ে কেউ থানায় অভিযোগ না করায় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। 

লোকসংবাদ | Loksangbad | The First Bangla Online Newspaper from Noakhali সাজসজ্জা করেছেন মুকুল | কপিরাইট © ২০১৫ | লোকসংবাদ | ব্লগার

Bim থেকে নেওয়া থিমের ছবিগুলি. Blogger দ্বারা পরিচালিত.