সর্বশেষ

নোবিপ্রবি’র ফার্মেসী বিভাগের শিক্ষার্থীরা ফার্মেসী কাউন্সিলের অনুমোদন ছাড়া স্নাতক ফাইনাল পরীক্ষা দিচ্ছেনা


লাগাতার ক্লাস বর্জন ।। ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানববন্ধন
ফার্মেসী কাউন্সিলের অনুমোদন ছাড়া ২৪ জুন অনুষ্ঠিতব্য স্নাতক (সম্মান) ফাইনাল পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করছেনা নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসী বিভাগের শিক্ষার্থীরা। ফার্মেসী কাউন্সিলের অনুমোদনের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা মঙ্গলবার ক্লাস বর্জন করে ক্যাম্পাসে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশে লাগাতার ক্লাস বর্জন ও পরীক্ষা বর্জনের ঘোষনা দেয়।
সকাল ১০টা থেকে শিক্ষার্থীরা ক্লাস বর্জন করে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল শেষে প্রশাসনিক ভবনের সামনে ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন করে। সেখানে এক সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ফার্মেসী বিভাগের স্নাতক (সম্মান)  ফাইনাল ইয়ারের ছাত্র মেজবাহ উর রহমান তুহিন ও মিনহাজুর রহমান আকাশ।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা জানান, নোবিপ্রবির’র ফার্মেসী বিভাগের প্রথম ব্যাচে ২০০৬ সাল থেকে ৪৫ জন শিক্ষার্থী অধ্যায়নরত আছেন। দীর্ঘ সাড়ে তিন বছরেও তাদের বিভাগ ফার্মেসী কাউন্সিলের অনুমোদন পাইনি। এ বিভাগের স্নাতক (সম্মান) চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থীরা আর কিছুদিনের মাধ্যেই স্নাতক ডিগ্রী অর্জন শেষে কর্মক্ষেত্রে প্রবেশ করতে যাচ্ছে। ফার্মেসী কাউন্সিলের অনুমোদন ছাড়া তাদের পদোন্নতি এবং উচ্চতর শিক্ষা গ্রহনের জন্য বহির্বিশ্বে গমন বাধাগ্রস্ত হবে। এ ব্যপারে শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের সাথে যোগাযোগ করলে তারা অনুমোদন সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ফার্মেসী কাউন্সিলে পাঠিয়েছেন বলে জানালেও কবে নাগাত অনুমোদন পাওয়া যাবে তা বলতে পারেননি।

এনিয়ে শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন সময় নানা কর্মসূচী পালন করে আসছিল। এতেও কোন কাজ না হওয়ায় আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা আগামী ২৪ জুন অনুষ্ঠিতব্য øতক (সম্মান) বর্ষের চূড়ান্ত পরীক্ষায় অংশগ্রহণ না করার সিদ্ধান্ত নেয়।

এব্যাপারে ফার্মেসী বিভাগের চেয়ারম্যান যায়যায়দিনকে বলেন, অনুমোদন সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ফার্মেসী কাউন্সিলে পাঠিয়ে গত দুই বছর বার বার যোগাযোগের পরও তারা কোন উদ্যোগ না নেয়ায় শিক্ষার্থীদের এ অনাকাঙ্খিত পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হয়েছে। তিনি বলেন-বিষয়টি শিক্ষার্থীদের মতো আমাদেরকেও কষ্ট দিচ্ছে।

ভিসি প্রফেসর ড. সঞ্জয় কুমার অধীকার জানান, ফার্মেসী কাউন্সিলের অনুমোদন সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় কাগজপত্র বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন যথাসময়ে কাউন্সিলে পাঠিয়েছে। এরপর  ফার্মেসী কাউন্সিল কর্তৃপক্ষকে বার বার  বিশ্ববিদ্যালয় ভিজিটের আমন্ত্রণ জানানো হলেও নিজস্ব সমস্যার কারণে তারা তা করেননি। আর এ কারণে কাউন্সিলের অনুমোদনের বিষয়টিও অনিশ্চিত হয়ে পড়ে। তবে এ পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্য সচিব ইচ্ছে করলে অস্থায়ী অনুমোদন দিতে পারেন। সে ব্যাপারেও আমরা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। শিক্ষর্থীদের পরীক্ষা বর্জনের বিষয়ে ভিসি জানান, উদ্ভূত পরিস্থিতিতে প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থীরা জুনে অনুষ্ঠিততব্য পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে বিধায় বিভাগীয় চেয়ারম্যানের সাথে আলোচনাক্রমে আমরা সেভাবে পরীক্ষার রুটিও তৈার করেছি। চতুর্থ বর্ষের শিক্ষর্থীদের পরীক্ষা পরে নেয়ার সুযোগ রয়েছে বলেও ভিসি জানান।

ছবি ক্যাপশন: ফার্মেসী কাউন্সিলের অনুমোদনের দাবিতে নোবিপ্রবি ক্যাম্পাসে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধ

লোকসংবাদ | Loksangbad | The First Bangla Online Newspaper from Noakhali সাজসজ্জা করেছেন মুকুল | কপিরাইট © ২০১৫ | লোকসংবাদ | ব্লগার

Bim থেকে নেওয়া থিমের ছবিগুলি. Blogger দ্বারা পরিচালিত.