সর্বশেষ

কোম্পানীগঞ্জে ও.এম.এসের চাল পাচারের সময় ১৭ বস্তা চাল আটক করেছে জনতা

মোঃ শরফুদ্দিন শাহীন, কোম্পানীগঞ্জ থেকে:
নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার বসুরহাট পৌরসভার কলেজ রোডে শনিবার রাত ৯টায় ও.এম.এস ডিলার রাজু সাহার গুদাম থেকে ১৭ বস্তা চাল কালো বাজারে পাচার করার সময় জনতা আটক করে। পরে সংবাদ পেয়ে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে পাচার করা চালগুলো উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। এ ব্যাপারে থানায় একটি জিডি হয়েছে বলে পুলিশ জানায়। উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তা এম.এ. রউফ বিষয়টি তদন্ত করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে রিপোর্ট দাখিল করবেন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ আমজাদ হোসেন পাচারের সময় ও.এম.এসের চাল উদ্ধারের বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, খাদ্য কর্মকর্তা তদন্ত রিপোর্ট দাখিল করার পর আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।
সূত্র থেকে জানাযায়, বসুরহাট পৌরসভায় ও.এম.এসের চাল বিক্রির জন্য ৫জন ডিলার নিয়োগ করা হয়েছে। ও.এম.এসের সকল ডিলাররা সরকার দলীয় লোক। ডিলাররা হলেন, বসুরহাট উত্তর মাদ্রাসা রোডে ওমর ফারুক, করালিয়া ৩নং ওয়ার্ডে গিয়াস উদ্দিন, কলেজ রোডে রাজু সাহা, হাসপাতাল রোডে খাজা আবুল খায়ের, সিনেমা হল রোডে আবুল কালাম। একজন ডিলার প্রতিদিন ১ হাজার ২০ কেজি চাল ২০৪ জনে মাঝে বিক্রি করবেন। সপ্তাহের প্রথম ৩ দিনের জন্য এক সাথে ৩ টন ৬০ কেজি চাল, ২য় সপ্তাহ প্রতি বুধবার ৪ টন ৮০ কেজি চাল প্রতি ডিলার গুদাম থেকে উত্তোলন করে থাকে।

ও.এম.এস সুবিধা ভোগীরা জানান, ডিলারেরা গুদাম থেকে চাল উত্তোলন করে নামে মাত্র কয়েক জনকে চাল দিয়ে আর বাকী সব চাল তাদের দোকানে নিয়ে যায়। ওই চাল তারা কালো বাজারে বিক্রি করে দেয়ায় ও.এম.এস সুবিধা ভোগীরা চাল সরবরাহ থেকে প্রতিদিন বঞ্চিত হচ্ছে। 

লোকসংবাদ | Loksangbad | The First Bangla Online Newspaper from Noakhali সাজসজ্জা করেছেন মুকুল | কপিরাইট © ২০১৫ | লোকসংবাদ | ব্লগার

Bim থেকে নেওয়া থিমের ছবিগুলি. Blogger দ্বারা পরিচালিত.