সর্বশেষ

কোম্পানীগঞ্জে যুবলীগের দু’গ্রুপে সংঘর্ষের ঘটনায় আ’লীগ নেতা নিহত

মোঃ শরফুদ্দিন শাহীন, কোম্পানীগঞ্জ থেকে:

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার চরএলাহী ইউনিয়নের গাংচিল গ্রামে নব নির্মাণ রাস্তার ইট সাপ্লাই দেওয়াকে কেন্দ্র করে যুব লীগের দু’গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় আ’লীগ নেতা এনায়েত উল্যাহ উকিল (৪৬)  নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ঢাকা নেওয়ার পথে রোববার রাত দেড়টার সময় মারা যায়। এনায়েত উল্যা উকিলের মৃত্যুর সংবাদ শুনে গাংচিল গ্রামে শোকের ছায়া নেমে আসে।
লাশের ময়না তদন্ত শেষে রোববার বিকেলে গাংচিল গ্রামে নেতা এনায়েত উল্যা উকিলকে শেষ দেখার জন্য হাজার হাজার লোক সমবেত হয়। কোম্পানীগঞ্জ থানার পুলিশ রোববার বিকেলে ওই এলাকায় গিয়ে লোকজনকে শান্ত থেকে ধৈর্য্য ধারণ করার আহ্বায় জানান। এনায়েত উল্যাহ্ উকিলের স্ত্রী শেফালী বেগম বাদী হয়ে আ’লীগ যুবলীগের ২০জন অজ্ঞাতনামা আরো ৮/১০ জনের বিরুদ্ধে কোম্পানীগঞ্জ থানায় মামলা দিয়েছে।

শুক্রবার সকালে উপজেলার গাংচিল গ্রামের যুবলীগ নেতা মোজ্জামেল হোসেন ওই এলাকার নব নির্মিত রাস্তার ঠিকাদারের কেয়াটেকার দুলাল নামে এক যুবককে তার দোকানে নিয়ে মারধর করাকে কেন্দ্র করে ওই ঘটনার জের ধরে যুবলীগ নেতা মোজাম্মেল ও যুবলীগ নেতা ইকবাল গ্রুপের মধে সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১২টার দফায় দফায় রক্তক্ষয়ি তুমূল সংর্ঘষ হয়। এ ঘটনায় উভয় পক্ষের ৩৫জন গুরুত্বর আহত হয়। ওই দিন রাত ১০টার দিকে উপজেলা আ’লীগের দলীয় কার্যালয়ে গাংচিল গ্রামের যুবলীগ নেতা ইকবাল ও মোজাম্মেল পক্ষের লোকজন নিয়ে দলীয় নেতৃবৃন্দ এক সমঝোতার বৈঠক বসে। সমঝোতার বৈঠকে উপেক্ষা গাংচিল গ্রামের যুব’লীগ নেতারা দু‘পক্ষ থানায় গিয়ে পাল্টা-পাল্টি মামলা করে নিজ দলীয় নেতা কর্মীদের বিরুদ্ধে । আ’লীগ নেতা এনায়েত উল্যাহ্ উকিল রোববার রাতে ঢাকা নেওয়ার পথে মারা যাওয়ায় এলাকার পরিস্থিতি উপতপ্ত হয়ে উঠে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত পুলিশ কাউকে গ্রেপ্তার করেনি।

লোকসংবাদ | Loksangbad | The First Bangla Online Newspaper from Noakhali সাজসজ্জা করেছেন মুকুল | কপিরাইট © ২০১৫ | লোকসংবাদ | ব্লগার

Bim থেকে নেওয়া থিমের ছবিগুলি. Blogger দ্বারা পরিচালিত.