সর্বশেষ

লক্ষ্মীপুরের চরে নালিশী ভূমি দখল নিয়ে দু’পক্ষের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশংকা, দারোগার বিরুদ্ধে পক্ষপাতিত্ত্বের অভিযোগ

সাইফুল ইসলাম স্বপন, লক্ষ্মীপুর থেকে:
লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলার চরকাছিয়ায় একটি নালিশী ভূমির দখল প্রতিষ্ঠা নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশংকা দেখা দিয়েছে। এদিকে একই নালিশী ভূমির প্রকৃত মালিকানা ও দখল প্রতিবেদন তদন্তে স্থানীয় হাজীমারা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই ছবিউর রহমানের বিরুদ্ধে পক্ষপাতিত্ত্বের অভিযোগ পাওয়া গেছে।
জানা যায়, রায়পুরের চরকাছিয়া মৌজায় সাড়ে ৩ একর ভূমি বন্দোবস্ত নিয়ে প্রায় ৩০ বছর ধরে ভোগদখল করে আসছে সদর উপজেলার চররুহিতা গ্রামের আবুল কালাম গংরা। উক্ত জমিতে তাদের বর্গাদার ঘর তুলে স্বপরিবারে বসবাসও করছে। সম্প্রতি রায়পুর উপজেলার বামনি গ্রামের বেলায়েত হোসেন চৌধুরী উক্ত জমির আড়াই একর ভূমির নিজের মালিকানা দাবি করে আদালতে মামলা করলে আদালত উক্ত জমিতে ১৪৪ ধারা ও দখল তদন্ত প্রতিবেদন দেয়ার জন্য রায়পুর থানার ওসিকে নির্দেশ দেন। সে মোতাবেক সরজমিন প্রতিবেদন দাখিলের দায়িত্ব পড়ে দারোগা ছবিউর রহমানের ওপর। দারোগা ১ম পক্ষ বেলায়েত হোসেন চৌধুরী ও ২য় পক্ষ আবুল কালাম গংদেরকে স্বাক্ষরিত এক নোটিশের মাধ্যমে তর্কিত ভূমিতে স্থিতাবস্থা বজায় রাখার নোটিশ প্রদান করেন। অভিযোগ উঠেছে, সংশ্লিষ্ট তদন্তকারী দারোগা ২য় পক্ষের কাগজপত্র পর্যালোচনা না করে এবং ঘটনাস্থলে না গিয়ে স্থানীয় মিয়া বাজারে বসে ১ম পক্ষের লোকজনের সাথে কথা বলে আদালতে একটি রিপোর্ট দেয়। এতে ২য় পক্ষের লোকজন চরম হয়রানির শিকার হচ্ছেন। এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট দারোগার সাথে সরাসরি কথা বললে তিনি ঘটনাস্থলে না গিয়ে পথচারী নাম না জানা ২/৪জনকে জিজ্ঞাসা করে তদন্ত রিপোর্ট দেয়ার কথা স্বীকার করেন। 

লোকসংবাদ | Loksangbad | The First Bangla Online Newspaper from Noakhali সাজসজ্জা করেছেন মুকুল | কপিরাইট © ২০১৫ | লোকসংবাদ | ব্লগার

Bim থেকে নেওয়া থিমের ছবিগুলি. Blogger দ্বারা পরিচালিত.