সর্বশেষ

সকল প্রস্তুতি সত্বেও আজ শুক্রবার নোয়াখালী জেলা বিএনপি সম্মেলন হচ্ছেনা 

সকল প্রস্তুতি সত্বেও আজ শুক্রবার নোয়াখালী জেলা বিএনপি সম্মেলন হচ্ছেনা। দলের হাইকমাণ্ডের নির্দেশে বৃহস্পতিবার থেকে সম্মেলনের সকল কর্মকাণ্ড স্থগিত করা হয়েছে। জেলা বিএনপির আহবায়ক মোহাম্মদ শাহজাহান জানান, বৃহস্পতিবার সকালে ফোনে দলের হাইকমাণ্ডের নির্দেশনার ভিত্তিতে সম্মেলনের সকল কর্মকাণ্ড স্থগিত করা হয়। এদিকে হঠাৎ করে সম্মেলন স্থগিতের খবরে পুরো জেলায় দলেরর নেতাকর্মীদের মধ্যে হতাশা দেখা দিয়েছে।
জেলা সম্মেলনকে সামনে রেখে গত কয়েক দিন থেকে তৃনমূল দলকে সংগঠিত করার কাজে ব্যাস্ত ছিলেন নেতাকর্মীরা । সম্মেলনের দিন যতই ঘনিয়ে আসছিল ততই জেলা কমিটির সম্ভাব্য সভাপতি, সাধারন সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদক পদপ্রার্থীদের কর্মতৎপরতাও বেড়ে চলছিল। দলের বিভিন্ন পর্যায়ের কাউন্সিলরদের পক্ষে আনার জন্য গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন পদে সম্ভাব্য প্রার্থীরা মরিয়া হয়ে উঠছিলেন।

কেন্দ্রীয়ভাবে বিএনপি’র জেলা পর্যায়ে সম্মেলন ৩০ নভেম্বরের মধ্যে শেষ করার কথা থাকলেও নোয়াখালী জেলা বিএনপি’র সম্মেলনের তারিখ নির্ধারন করা হয়েছিল ৪ ডিসেম্ব শুক্রবার। বিএনপির দুর্গ হিসেবে পরিচিত নোয়াখালীতে দলের জেলা সম্মেলনের পূর্ব প্রস্তুতি হিসেবে জেলায় দলের ১৭টি সাংগঠনিক ইউনিটের মধ্যে ১১টির সম্মেলন সম্পন্ন করা হয়েছিল। জেলায় মোট ৯ টি উপজেলার মধ্যে সদর, বেগমগঞ্জ, সেনবাগ, সুবর্ণচর, কবিরহাট ও কোম্পানীগঞ্জ এ ৬ টি উপজেলায় সম্মেলন সম্পন্ন করা হয়েছিল। অন্যদিকে ৮টি পৌরসভার মধ্যে নোয়াখালী, সেনবাগ, চৌমুহনী, কবিরহাট ও বসুরহাট এ ৫টি পৌরসভার সম্মেলন সম্পন্ন করা হয়েছিল।

      সম্মেলনের দ্বিতীয় পর্বে কাউন্সিল অধিবেশনে গোপন ব্যালনে প্রত্যক্ষ ভোটে নেতৃত্ব নির্বাচনের জন জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এডভোকেট মঈনউদ্দিন আহম্মেদ খসরুকে প্রধান করে ৩ সদস্য বিশিষ্ট নির্বাচন কমিশন গঠন করা হয়েছিল। প্রধান নির্বাচন কমিশনার এডভোকেট মঈনউদ্দিন আহম্মেদ খসরু জানান, সভাপতি পদে ১টি, সাধারন সম্পাদক পদে ২টি এবং সাংগঠনিক সম্পাদক পদে ৪ টি ফরম বিক্রি হয়েছে।

কেন্দ্র ঘোষিত নির্ধারিত সময়ের মধ্যে সম্মেলন করতে না পারা প্রসঙ্গে জেলা বিএনপির আহবায়ক সাবেক সাংসদ মোহাম্মদ শাহজাহান জানান, দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহম্মদের সাথে পরামর্শক্রমেই সবদিক বিবেচনা করে জেলা সম্মেলনের তারিখ নির্ধারন করা হয়েছিল। তিনি জানান, জেলা সম্মেলন স্থগিত হয়ে গেলেও কেন্দ্রীয় সম্মেলনে নোয়াখালীর ১৭ টি ইউনিটের মোট ৩৮ জন কাউন্সিলর অংশগ্রহণ করতে পারছেন। এরমধ্যে ইতোমধ্যে যে ১১টি ইউনিটের সম্মেলন সম্পন্ন হয়েছে সেসব ইউনিটের সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক ২২ জন, আর বাকি ৬ ইউনিটের আহবায়ক কমিটির জন আহবায়ক ও প্রথম যুগ্ম আহবায়ক মিলিয়ে মোট ১২ কাউন্সিলর বিবেচিত হবেন। বাকি ৪ জনের মধ্যে জেলা কমিটির আহবায়ক ও প্রথম যুগ্ম আহবায়ক এবং ২ জন মহিলা কাউন্সিল থাকবেন।

লোকসংবাদ | Loksangbad | The First Bangla Online Newspaper from Noakhali সাজসজ্জা করেছেন মুকুল | কপিরাইট © ২০১৫ | লোকসংবাদ | ব্লগার

Bim থেকে নেওয়া থিমের ছবিগুলি. Blogger দ্বারা পরিচালিত.